Saturday, November 17, 2018

Investigation In the Dream_Short Film Stories

Investigation In the Dream_Short Film Stories কাহিনী সংক্ষেপঃ   সাজন প্রায় দিনই সকালে পুকুর পাড়ে একাকী অবস্থায় বিমর্ষ হয়ে বসে থাকে। মাঝে মাঝে চোখ থেকে অশ্রু ঝরে। তার ছোট ভাই রাজন আজ পাঁচ দিন থেকে লাপাত্তা। পুকুরের সাথে সাজনের যেন বহু দিনের সম্পর্ক। সারাক্ষণ তাকে যেন কাছে টানে। পুকুর পাড়ে বসে অবচেতন মনে মাঝে মাঝে তাকে যেন দেখতে পায়। আর কানে শুনতে পায় ‘ভাইয়া আমাকে যারা খুন করেছে তাদের যেন উপযুক্ত শাস্তি হয়’। মাঝে মাঝে রাজনের দেহ থেকে মাথা পর্যন্ত যেন পুকুরে উঠে আসে আর তাকে মিনতি করে বলে তাদের যেন উপযুক্ত বিচার হয়। পাঁচ দিন আগে রাজন প্রায় বারটার দিকে টিউশনি থেকে ফিরে জহু হলের গেট দিয়ে ঢুকে। এমন সময় তার মাকে ফোন করে খুশির সংবাদ জানায় যে সে আজ তিনটি টিউশনি থেকে পনের হাজার টাকা পেয়েছে। মাঠে বসে ছিল তিন জন ছেলে আর সিগারেট টানছিল। তারা রাজনের কথা গুলো শুনতে পায়। চারপাশ নিরব। দুই জন তার কাছে গিয়ে তার কাছ থেকে জবরদস্তিমূলকভাবে টাকা গুলো ছিনতায় করার চেষ্টা করে। তার কাছে যা টাকা আছে তা যেন তাদের দিয়ে দেয় নয়লে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। রাজন ভয় পেয়ে দ্রুত মাঠের দিক দিয়ে প্রাচীরের পাশে দৌড়ে চলে যায়। দ্রুত সেখানে মাতটর নিচে টাকা লুকিয়ে ফেলে। তারপর আবার দৌড়ে পুকুর পাড়ের দিকে যেতে থাকে। কিন্তু ঐ তিন জন এসে তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তার হাতে স্মার্ট ফোন ছিল সে ভিডিও করার চেষ্টা করছিল কিন্তু ফোনটি পুকুর পাড়ে পড়ে ঝোঁপে আঁটকে যায়। তারা অনেক তল্লাশি করেও তার কাছে কিছু না পেয়ে। পুকুরে নিয়ে চলে যায়। এক জন মুখ চেপে ধরে। তারা তাকে পানিতে নিয়ে চলে যায়। তাকে পানির নিচে চেপে ধরে। কিছুক্ষণ পর সে মারা গেলে এক জন কয়েকটি ইট দড়ি দিয়ে বেঁধে তার গলায় ঝুলিয়ে দেয়। সে পানির নিচে চলে যায়। তারা আশেপাশে টাকা খুঁজার চেষ্টা করে কিন্তু না পেয়ে সেখান থেকে চলে যায়। সাজন হঠাত চমকে উঠে। সে ক্লান্ত শ্রান্ত অবস্থায় ঘুমিয়ে পড়েছিল। স্বপ্নে সব কিছু দেখতে পায়। সে আঁতকে উঠে। সে তৎক্ষণাৎ গাছটির নিচে চলে যায় যেখানে তার ভাই টাকা লুকিয়ে রেখেছিল। অক্ষত অবস্থায় টাকাগুলো সে মাটির নিচ থেকে পায়। সে পুকুর পাড়ে গিয়ে মোবাইল ফোনটি বন্ধ অবস্থায় পায়। রুমে নিয়ে গিয়ে চার্জ দেয়ার পর সে দেখতে পায় পুরো ঘটনা কিভাবে তার ভাইকে তারা খুন করেছে। সে বিমর্ষ হয়ে পড়ে। চোখে জল আসে কিন্তু উচ্চস্বরে কাঁদতে পারে না। তৎক্ষণাৎ পুলিশকে ফোন দিয়ে ঘটনা বলে। থানায় ভিডিও সহ মোবাইলটি নিয়ে যায়।
Investigation In the Dream_Short Film Stories_BD Films Info
কাহিনী সংক্ষেপঃ 
সাজন প্রায় দিনই সকালে পুকুর পাড়ে একাকী অবস্থায় বিমর্ষ হয়ে বসে থাকে। মাঝে মাঝে চোখ থেকে অশ্রু ঝরে। তার ছোট ভাই রাজন আজ পাঁচ দিন থেকে লাপাত্তা। পুকুরের সাথে সাজনের যেন বহু দিনের সম্পর্ক। সারাক্ষণ তাকে যেন কাছে টানে। পুকুর পাড়ে বসে অবচেতন মনে মাঝে মাঝে তাকে যেন দেখতে পায়। আর কানে শুনতে পায় ‘ভাইয়া আমাকে যারা খুন করেছে তাদের যেন উপযুক্ত শাস্তি হয়’। মাঝে মাঝে রাজনের দেহ থেকে মাথা পর্যন্ত যেন পুকুরে উঠে আসে আর তাকে মিনতি করে বলে তাদের যেন উপযুক্ত বিচার হয়। পাঁচ দিন আগে রাজন প্রায় বারটার দিকে টিউশনি থেকে ফিরে জহু হলের গেট দিয়ে ঢুকে। এমন সময় তার মাকে ফোন করে খুশির সংবাদ জানায় যে সে আজ তিনটি টিউশনি থেকে পনের হাজার টাকা পেয়েছে। মাঠে বসে ছিল তিন জন ছেলে আর সিগারেট টানছিল। তারা রাজনের কথা গুলো শুনতে পায়। চারপাশ নিরব। দুই জন তার কাছে গিয়ে তার কাছ থেকে জবরদস্তিমূলকভাবে টাকা গুলো ছিনতায় করার চেষ্টা করে। তার কাছে যা টাকা আছে তা যেন তাদের দিয়ে দেয় নয়লে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। রাজন ভয় পেয়ে দ্রুত মাঠের দিক দিয়ে প্রাচীরের পাশে দৌড়ে চলে যায়। দ্রুত সেখানে মাতটর নিচে টাকা লুকিয়ে ফেলে। তারপর আবার দৌড়ে পুকুর পাড়ের দিকে যেতে থাকে। কিন্তু ঐ তিন জন এসে তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তার হাতে স্মার্ট ফোন ছিল সে ভিডিও করার চেষ্টা করছিল কিন্তু ফোনটি পুকুর পাড়ে পড়ে ঝোঁপে আঁটকে যায়। তারা অনেক তল্লাশি করেও তার কাছে কিছু না পেয়ে। পুকুরে নিয়ে চলে যায়। এক জন মুখ চেপে ধরে। তারা তাকে পানিতে নিয়ে চলে যায়। তাকে পানির নিচে চেপে ধরে। কিছুক্ষণ পর সে মারা গেলে এক জন কয়েকটি ইট দড়ি দিয়ে বেঁধে তার গলায় ঝুলিয়ে দেয়। সে পানির নিচে চলে যায়। তারা আশেপাশে টাকা খুঁজার চেষ্টা করে কিন্তু না পেয়ে সেখান থেকে চলে যায়। সাজন হঠাত চমকে উঠে। সে ক্লান্ত শ্রান্ত অবস্থায় ঘুমিয়ে পড়েছিল। স্বপ্নে সব কিছু দেখতে পায়। সে আঁতকে উঠে। সে তৎক্ষণাৎ গাছটির নিচে চলে যায় যেখানে তার ভাই টাকা লুকিয়ে রেখেছিল। অক্ষত অবস্থায় টাকাগুলো সে মাটির নিচ থেকে পায়। সে পুকুর পাড়ে গিয়ে মোবাইল ফোনটি বন্ধ অবস্থায় পায়। রুমে নিয়ে গিয়ে চার্জ দেয়ার পর সে দেখতে পায় পুরো ঘটনা কিভাবে তার ভাইকে তারা খুন করেছে। সে বিমর্ষ হয়ে পড়ে। চোখে জল আসে কিন্তু উচ্চস্বরে কাঁদতে পারে না। তৎক্ষণাৎ পুলিশকে ফোন দিয়ে ঘটনা বলেথানায় ভিডিও সহ মোবাইলটি নিয়ে যায়।


SHARE THIS

0 comments: